• Thursday, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ০৯:৫৩
শিরোনাম

আরব আমিরাতে লকডাউন খোলা ; যেসব বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন জরুরি

মুহাম্মদ মুইনুদ্দিন


লকডাউন খোলার অর্থ হচ্ছে অর্থনৈতিক সংকট কেটে আগের মত জীবন যাপনে ফিরে আসা। করোনা পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক নয়। কিছু শর্ত সাপেক্ষে লকডাউনের সময় কমিয়ে আনা হয়েছে। সতর্কতার সাথে চলাচল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আমিরাতের শাসক,কোভিড -১৯ কমান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টার, দুবাই স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ, দুবাই পুলিশ, দুবাই সিভিল ডিফেন্স, দুবাইয়ের দুবাই কর্পোরেশন, দুবাইয়ের সড়ক ও পরিবহন কর্তৃপক্ষ, দুবাই পৌরসভা ও ওয়াতানী আল ইমারাত ফাউন্ডেশন এবং অন্যান্য কর্তৃপক্ষ স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ব্যতিক্রমী প্রচেষ্টা চালিয়েছে। নাগরিক এবং বাসিন্দাদের সুরক্ষায় আন্তরিক প্রচেষ্টা ত্যাগ শ্রম এ গুলো প্রবাসীরা কখনো ভুলার মত নয়। পাশাপাশি বাংলাদেশী ১৯ জনের একটি টিম নিরলসভাবে ২৭ দিন যাবত প্রশাসনের সাথে ২৫ হাজার বাংলাদেশী যারা নায়েফে গৃহবন্দী জীবন যাপন করেছেন তাদের কে সকাল বেলা নাস্তা থেকে নিয়ে দুপুর এবং রাতের খাবার বিতরণে রাত দিন পরিশ্রম করেছেন তাদের প্রতি বাংলাদেশী সকল প্রবাসীদের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আল্লাহ তাদেরকে সুস্থ রাখুন এবং কবুল করুন। আমিন।

বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় আমাদের যে সব সতর্কতা অবলম্বন করে চলা ফেরা করা উচিৎ

এক. আরব আমিরাতে সকাল ৬ টা থেকে রাত ১০ টা পযর্ন্ত শর্ত সাপেক্ষে চলাচল করা যাবে কোন পারমিট নিতে হবে না।

দুই. রাত ১০ টা থেকে সকাল ৬ পর্যন্ত পুরো আমিরাতে লকডাউন জারি থাকবে। জরুরি কাজে বের হলে পারমিট নিতে হবে।

তিন. পার্সোনাল গাড়ীতে সর্বোচ্চ ৩ জন। টেক্সীতে ২ জন। যাতায়াত করা যাবে। মাক্স ও গ্লাভস দূরত্ব বজায় রাখা বাধ্যতামূলক। না হলে ১ হাজার টাকা জরিমানা।

চার. বাহিরে/গাড়ীতে/মলে চলাচল এবং অফিস/ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে মাক্স ও গ্লাভস বাধ্যতামূলক লাগাতে হবে। প্রতিটি জায়গায় চেক পোস্ট রয়েছে। অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আজ বন্ধ করে দিয়েছেন। অনেককে সতর্ক করেছেন এবং অনেককে জরিমানা করা হয়েছে।

পাঁচ. কাজের জন্য শর্ত হচ্ছে সকল সংস্থার সর্বোচ্চ কর্মী উপস্থিতির অনুমতি পাবে ৩০% । আর ৭০% লোক ঘরে অবস্থান করে কাজ চালিয়ে যেতে পারবে।

ছয়. দুবাই রোলস ৮ ঘন্টা কাজ/অফিস করা। কিন্তু তা ২ ঘন্টা কমিয়ে ৯ টা থেকে ৩ টা পযর্ন্ত ৬ ঘন্টা করা হয়েছে।

সাত. শপিং মলে দুপুর ১২ টা থেকে রাত ১০ টা পযর্ন্ত যাওয়া যাবে। সর্বোচ্চ ৩ ঘন্টার উপরে মার্কেটে অবস্থান করা যাবে না। ১ থেকে ১২ বছরের বাচ্চা এবং ৬০ বছরের উপরে বয়স্ক ব্যক্তিদের শপিংমল বা মার্কেটে যাওয়া সম্পূর্ণ নিষেধ করা হয়েছে। এ সমস্ত আইন কানুন সব আমাদের সুস্থ রাখতে করা হয়েছে। অমান্য করলে নিজের এবং অন্য জনের বিপদ ডেকে আনবে। সকলে নিজ নিজ অবস্থানে সতর্কতা অবলম্বন করি। প্রশাসন ও সাস্থকর্মীদের নিয়ম কানুন মেনে চলার চেষ্টা করি। দেশ বিদেশে সকল অসুস্থদের জন্য পবিত্র রমজান মাসে আল্লাহ দরবারে দোয়া করি। আল্লাহ সবাই কে সুস্থ রাখুন এবং কবুল করুন আমিন।

দুবাই প্রবাসী। আরব আমিরাত। 

শেয়ার

প্রাসঙ্গিক সংবাদ

আমিরাতে লাখ দিরহাম পথে পেয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর।সততার বিরল দৃষ্টান্ত রাখলেন এক বাংলাদেশি

আমিরাতে লাখ দিরহাম পথে পেয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর।সততার বিরল দৃষ্টান্ত রাখলেন এক বাংলাদেশি

রাস্তায় বড় আকারের পলিথিন ব্যাগভর্তি ১ হাজার দিরহাম নোটের প্রচুর বান্ডিল পেয়েও পুলিশের কাছে জমা